শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:২৩ অপরাহ্ন
ঘোষণা :
যারা রাজনীতিকে খেলায় পরিণত করেছে তাদের লাল দেখিয়ে বিদায় করতে হবে – গাইবান্ধার জনসভায় প্রিন্স কাগজসহ শিক্ষা উপকরণের দাম কমানোর দাবিতে গাইবান্ধায় ছাত্র ইউনিয়নের বিক্ষোভ পল্লী রেশনিং চালুসহ ৬দফা দাবিতে গাইবান্ধায় ক্ষেতমজুর সমিতির বিক্ষোভ আদিবাসী সাঁওতাল হত্যার বিচার করতে হবে, তাদের বাপদাদার জমি ফেরত দিতে হবে – অধ্যাপক এম এম আকাশ ভাত ও ভোটের অধিকারের দাবিতে লড়াই জোড়দার করতে হবে পলাশবাড়ী ও গোবিন্দগঞ্জে কমিউনিস্ট পার্টির সমাবেশে লাকী আক্তার বিশ্ব শিশু দিবস উপলক্ষে দারিয়াপুরে শিশুদের অনুষ্ঠান গাইবান্ধায় কমরেড ফরহাদের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি চক্রান্ত বন্ধ, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবিতে গাইবান্ধায় বাম জোটের বিক্ষোভ সমাবেশ যানজট সমস্যা সমাধানের দাবিতে দারিয়াপুরে কমিউনিস্ট পার্টির বিক্ষোভ মহান শিক্ষা দিবস উপলক্ষ্যে গাইবান্ধায় ছাত্র ইউনিয়নের মিছিল, আলোচনা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান
শিরোনাম :
যারা রাজনীতিকে খেলায় পরিণত করেছে তাদের লাল দেখিয়ে বিদায় করতে হবে – গাইবান্ধার জনসভায় প্রিন্স কাগজসহ শিক্ষা উপকরণের দাম কমানোর দাবিতে গাইবান্ধায় ছাত্র ইউনিয়নের বিক্ষোভ পল্লী রেশনিং চালুসহ ৬দফা দাবিতে গাইবান্ধায় ক্ষেতমজুর সমিতির বিক্ষোভ আদিবাসী সাঁওতাল হত্যার বিচার করতে হবে, তাদের বাপদাদার জমি ফেরত দিতে হবে – অধ্যাপক এম এম আকাশ ভাত ও ভোটের অধিকারের দাবিতে লড়াই জোড়দার করতে হবে পলাশবাড়ী ও গোবিন্দগঞ্জে কমিউনিস্ট পার্টির সমাবেশে লাকী আক্তার বিশ্ব শিশু দিবস উপলক্ষে দারিয়াপুরে শিশুদের অনুষ্ঠান গাইবান্ধায় কমরেড ফরহাদের ৩৫তম মৃত্যুবার্ষিকী পালিত বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি চক্রান্ত বন্ধ, নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবিতে গাইবান্ধায় বাম জোটের বিক্ষোভ সমাবেশ যানজট সমস্যা সমাধানের দাবিতে দারিয়াপুরে কমিউনিস্ট পার্টির বিক্ষোভ মহান শিক্ষা দিবস উপলক্ষ্যে গাইবান্ধায় ছাত্র ইউনিয়নের মিছিল, আলোচনা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান

গাইবান্ধায় নদ নদীর পানি বৃদ্ধি

সাপ্তাহিক দারিয়াপুর ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১৯ জুন, ২০২২
  • ১৪০

Hits: 44

গাইবান্ধা জেলার সবকয়টি নদ নদীর পানি হু হু করে বাড়ছে। ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, তিস্তা, ঘাঘট ও করতোয়া নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় গতকাল রোববার বিকেল পর্যন্ত যমুনা-ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপদসীমার ১৭সে.মি, তিস্তা ২৮সে.মি ও করতোয়া ১৪৫ সে.মি. নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। তবে ঘাঘট নদীর পানি বিপদসীমার ১৮ সে.মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিল। ফলে নদীর দু’ধারের লোকজন বন্যা আতঙ্কে রয়েছে।
এদিকে, ঘাঘট নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে শহর রক্ষা বাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে কোন নজরদারি লক্ষ্য করা যায়নি।
অপরদিকে উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও টানা প্রবল বর্ষণের কারণে প্লাবিত হয়ে পড়েছে তিস্তা, যমুনা-ব্রহ্মপুত্রের চরসহ ও নিম্নাঞ্চল। এতে পাট, তিল, উঠতি কাউন এবং বিভিন্ন সবজি ক্ষেতসহ তলিয়ে যাচ্ছে বিভিন্ন ফসল। চরাঞ্চলের মানুষের মাঝে বন্যার আতঙ্ক বৃদ্ধি পেয়েছে। অনেক স্থানের রাস্তাঘাটে পানি ওঠায় স্বাভাবিক চলাচলে বিঘিতœ হচ্ছে। যমুনায় পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় রোববার দুপুরে সাঘাটা উপজেলার ভরতখালী ইউনিয়নের দক্ষিণ উল্যা গ্রামে শ্মশানঘাট সড়কটির নিচ দিয়ে পানি প্রবাহিত হওয়ায় সড়কটির বেশিরভাগ অংশ ভেঙে যায়। ফলে ক্ষতিগ্রস্ত ওই পথে যানবাহন ও গ্রামবাসীর চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সাপ্তাহিক দারিয়াপুর

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন