সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৫৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দারিয়াপুরে রুধির’র ১ম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত দারিয়াপুর জয়নাল আবেদীন প্রিপারেটরী স্কুলে বই উৎসব ইউপি নির্বাচনে গাইবান্ধায় জামানত হারালেন ৪০ প্রার্থী কমিউনিস্ট পার্টির সাঘাটা উপজেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত গাইবান্ধায় দূরারোগ্যব্যাধিতে আক্রান্ত রোগীদের আর্থিক সহায়তার চেক বিতরণ দুই মেধাবী শিক্ষার্থীর স্বপ্ন পূরণে পাশে দাঁড়ালেন জেলা প্রশাসক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে গাইবান্ধায় কমিউনিস্ট পার্টির অনশন গাইবান্ধায় শিশু অপহরণকারীর বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ ও সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে বিক্ষােভ লক্ষ্মীপুরে শীতার্তদের মাঝে বসুন্ধরা কিংস ফ্যানসের শীতবস্ত্র বিতরণ আদালতের রায় পেলেও পলাশবাড়ীর শিশুদহ বিলে মাছ ধরতে পুলিশের বাঁধা

আসপিয়ার চাকরি না হলে অনশনে বসবেন নির্মলেন্দু গুণ

সাপ্তাহিক দারিয়াপুর ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৮৯
স্থায়ী ঠিকানা না থাকায় পুলিশে চাকরি হচ্ছে না বাবা হারা আসপিয়ার। এ বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ইতিমধ্যে সমালোচনা তৈরি হয়েছে। সবকটি ধাপ পার হয়েও চাকরি না হওয়ার খবর পাওয়া যায় বৃহস্পতিবার।
এ ঘটনায় আসপিয়ার চাকরি না হলে অনশনে বসার ঘোষণা দিয়েছেন কবি নির্মলেন্দু গুণ। আসপিয়ার ঘটনায় ফেসবুকে করা একটি প্রতিবাদী পোস্টে মন্তব্য করে তিনি এই আগ্রহ জানান।
পরে ওই আইডি থেকে নির্মলেন্দু গুণের পুরো বক্তব্য পোস্ট করা হয়। সেখানে লেখা হয়, ‘ভূমিহীন হলে পুলিশের চাকরি করা যাবে না—এ রকম একটা আইন আছে, সেটাই তো জানতাম না। মেধা তালিকায় পঞ্চম হয়েও ভূমিহীন বলে বরিশালের আসপিয়া চাকরি পাবে না, এটা হতে পারে না। হতে দেওয়া যায় না। এই আইন বাতিল কিংবা সংশোধন করে তাকে চাকরি দেওয়া হোক। নইলে আমি অনশনে বসব।’
নির্মলেন্দু গুণের অনশনে বসার ঘোষণায় অনেকে সমর্থন জানিয়েছেন। তার সঙ্গে অনশনে বসার আগ্রহ দেখিয়েছেন অনেকে।
উল্লেখ্য, পুলিশে চাকরি হবে না এমন খবর পেয়ে আসপিয়া দ্রুত ছুটে যান ডিআইজি এসএম আকতারুজ্জামানের কার্যালয়ে। জানতে চান, সব ধাপে উত্তীর্ণ হওয়ার পরও কেন তার চাকরি হবে না। ডিআইজি জানান, নিজেদের জমি না থাকলে চাকরি দেওয়ার আইন নেই। এরপর ভাঙা মন নিয়ে দুপুর থেকে বিকাল পর্যন্ত পুলিশ লাইন্সের সামনে বসে থাকেন আসপিয়া।
জানা গেছে, সরকারি হিজলা ডিগ্রি কলেজ থেকে ২০২০ সালে এইচএসসি পাস করেছেন আসপিয়া ইসলাম। ১৫ বছর ধরে উপজেলার খুন্না-গোবিন্দপুর গ্রামের একজনের জমিতে আশ্রিত হিসেবে থাকছে তার পরিবার। আসপিয়ার বাবা সফিকুল ইসলাম মারা গেছেন। পরিবারে তারা তিন বোন, এক ভাই ও মা। তার ভাই পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। তার আয় দিয়েই চলে সংসার।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সাপ্তাহিক দারিয়াপুর

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com