শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৫৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় সন্ধানী ডোনার ক্লাবের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত পলাশবাড়ীতে যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ জাগো২৪.নেট’র ১ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত মতিয়ার রহমান টেকনিক্যাল অ্যান্ড বি.এম কলেজে এইচএসসি বিএম পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান পলাশবাড়ীতে ২টিতে আ.লীগ, ২টিতে জাপা ও ২টিতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর জয়ী দারিয়াপুরে মুদি দোকানে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় মালামাল পুড়ে ভষ্মিভূত দারিয়াপুর জয়নাল আবেদীন প্রিপারেটরী স্কুলের ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা গাইবান্ধা জেলা শিল্পকলা একাডেমীর নির্বাচন সম্পন্ন গাইবান্ধায় যুব ইউনিয়নের জেলা সম্মেলন অনুষ্ঠিত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ মিছিল

গাইবান্ধায় সেলিমকে নগদ অর্থ ও দোকানঘর উপহার দিলেন পুলিশ সুপার

সুমন কুমার বর্মন
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৩৭
গাইবান্ধার সদর উপজেলার নশরৎপুরে নিজ উদ্যোগে সেলিম (৩২) নামের এক  অসহায় প্রতিবন্ধী ব্যক্তিকে  নগদ অর্থ ও সদাইসহ দোকানঘর  উপহার দিলেন  গাইবান্ধা জেলা পুলিশ সুপার। সেলিম ওই গ্রামের মজিবর রহমানের ছেলে।
বুধবার গাইবান্ধা জেলা পুলিশের আয়োজনে ওই উপজেলার গণ উন্নয়ন কেন্দ্র অফিস সংলগ্ন  নশরৎপুরে অসহায় কর্মহীন সেলিমকে তার বাসার পাশে ফিতা কেটে  ” সদাইপাতি” নামে  দোকানঘরের উদ্বোধন  করেন গাইবান্ধা  পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম। সেই সাথে তার হাতে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, গাইবান্ধা সদর থানা অফিসার ইনচার্জ মাসুদুর রহমান, গাইবান্ধা ট্রাফিক ইনচার্জ নূর আলম সিদ্দিক, ট্রাফিক সার্জেন্ট তৌহিদুল ইসলাম ,টিএসআই রেজা, অত্র এলাকার ইউপি সদস্য ছাবেদ আলী, বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকার গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি গৌতম আসিস গুহ, সমকালের জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল চক্রবর্তী, দৈনিক নতুন দিন পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি সঞ্জয় সাহা, বৈশাখী টিভির প্রতিনিধি এস,এম বিপ্লব ইসলাম, এস,এ টিভির প্রতিনিধি কায়সার প্লাবন, দৈনিক খবরপত্র প্রতিনিধি আমিনুর রহমান, পুলিশ সদস্য সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
পুলিশ সুপার তৌহিদুল ইসলাম বলেন, জেলা পুলিশ তাদের সরকারি কাজের পাশাপাশি বিভিন্ন মানবিক কাজ করে থাকেন এবং তা অব্যাহত আছে।  ইতিমধ্যে করোনায় আক্রান্তদের নিশ্চিত করা সহ পরিবারের কোনো সমস্যা হলে তাদের খাবারের ব্যবস্থা করেছে জেলা পুলিশ। এরই ধারাবাহিকতায় সামাজিক দায়বদ্ধতার অংশ হিসাবে তাকে এই সহযোগীতা করা হয়েছে।
তিনি আরো বলেন, ২০২০ সালের ৮ই জুন বিভিন্ন গণমাধ্যম ও ফেসবুকের মাধ্যমে জানতে পারি সেলিম নামে একজন মানসিক প্রতিবন্ধী রয়েছে এবং শিকলে বাধা। চিকিৎসার অভাবে মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়ে। পরে ১৫ জুন পাবনায় মানসিক হাসপাতালে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করলে ৪ মাস চিকিৎসাধীন থাকার পর স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসে। এবং সেলিম যেন ভালভাবে জীবিকা নির্বাহ করতে পারে সে জন্য তাকে দোকানের মালসহ দোকানঘর ও নগদ অর্থ উপহার প্রদান করেন।  এছাড়াও অন্য কারো পরিবারের খাদ্য সংকট থাকলে তাদের পাশে সহযোগিতার হাত বাড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত করেন পুলিশ সুপার।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সাপ্তাহিক দারিয়াপুর

Theme Dwonload From ThemesBazar.Com