শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৭:৪৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড গাইবান্ধায় কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক  সমিতির মানববন্ধন রক্তে ভেজা তিনফসলি জমিতে ইপিজেড নির্মাণের পরিকল্পনা বাতিলের দাবি গাইবান্ধায় সাঁওতাল বাঙালি যুব সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত  সালামের খুনিদের গ্রেফতারের দাবিতে গাইবান্ধায় জাতীয় যুব জোটের মানববন্ধন ভোজ্য তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ মিছিল গাইবান্ধায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন গাইবান্ধায় এসএসসি ব্যাচ  ৯৩ এর পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কাবিলের বাজারে সিএনজির ধাক্কায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহত দারিয়াপুরে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় এক যুবক নিহত

সাদুল্লাপুরে পানিতে চেতনা নাশক ওষুধ স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুট

সাপ্তাহিক দারিয়াপুর ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৭ আগস্ট, ২০২১
  • ১২৬

Hits: 12

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার এক গ্রামে রান্না করা খাবারে চেতনানাশক ওষুধ মিশিয়ে দিয়ে পরিবারের সবাইকে অচেতন করে স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুট করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার সকালে অচেতন অবস্থায় ওই পরিবারের গৃহকর্তী নিলা রাণী সরকার (৫০) ও তার ছেলে হিমাংশু কুমার সরকার (৩০) কে উদ্ধার করে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের বড় দাউদপুর গ্রামের হোমিও চিকিৎসক অনিল কুমার সরকারের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

হোমিও চিকিৎসক অনিল কুমার সরকার জানান, সোমবার রাতে তার স্ত্রী নিলা রাণী সরকার ও তার ছেলে হিমাংশু কুমার সরকার রাতের খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। পরে ওই দিন রাত সাড়ে ১১টার দিকে তিনি পাশর্^বর্তী রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার মাদারগঞ্জহাটস্থ তার চেম্বার থেকে বাড়ি এসে দেখেন তার দুইটি ঘরের দরজা খোলা। এসময় তিনি তার স্ত্রীর ঘরের সামনে গিয়ে তাকে ডাকাডাকি করেন। কিন্তু কোন সাড়া না পেয়ে পরে ঘরের জানালা দিয়ে দেখেন তার স্ত্রী অচেতন হয়ে ঘরের মেঝেতে পড়ে আছেন। একই অবস্থা তার ছেলেরও। পরে দরজা খোলা ঘর দু’টিতে গিয়ে দেখতে পান আলমারি ও ট্রাঙ্ক গুলো খোলা এবং অন্যান্য জিনিসপত্র এলোমেলো অবস্থায় পড়ে আছে।

তিনি আরও জানান, দুর্বৃত্তরা ওই আলমারি ও ট্রাঙ্ক গুলো থেকে তার স্ত্রীর সাড়ে তিন ভরি স্বর্ণাংকার এবং নগদ ২০/২২ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে গেছে।

সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: সুরঞ্জন কুমার জানান, মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে অচেতন অবস্থায় এক নারীসহ ২ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদেরকে রাতের খাবার কিংবা পানির সাথে উচ্চ মাত্রার ঘুমের কিংবা চেতনানাশক ওষুধ ওষুধ মিশিয়ে খাওয়ানো হয়েছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাদের অবস্থা উন্নতির দিকে রয়েছে।

সাদুল্লাপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সাপ্তাহিক দারিয়াপুর

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন