শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৯:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড গাইবান্ধায় কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক  সমিতির মানববন্ধন রক্তে ভেজা তিনফসলি জমিতে ইপিজেড নির্মাণের পরিকল্পনা বাতিলের দাবি গাইবান্ধায় সাঁওতাল বাঙালি যুব সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত  সালামের খুনিদের গ্রেফতারের দাবিতে গাইবান্ধায় জাতীয় যুব জোটের মানববন্ধন ভোজ্য তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ মিছিল গাইবান্ধায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন গাইবান্ধায় এসএসসি ব্যাচ  ৯৩ এর পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কাবিলের বাজারে সিএনজির ধাক্কায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহত দারিয়াপুরে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় এক যুবক নিহত

ময়না কথা বলে, অন্য পাখি কথা বলে না কেন?

সাপ্তাহিক দারিয়াপুর ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৬ আগস্ট, ২০২১
  • ১২৮

Hits: 5

সবচেয়ে ভালো ও সুন্দরভাবে কথা বলে ‘কঙ্গো আফ্রিকান গ্রে প্যারট’ নামে পরিচিত একজাতীয় আফ্রিকান তোতাপাখি। কাকাতুয়া, ময়না, টিয়া এমনকি কাকও কথা বলতে পারে। আসলে এসব পাখি কথা বলে না, মানুষের কথার অনুকরণ বা নকল করে মাত্র। এরা শব্দের অর্থ বোঝে না। মানুষের স্বরতন্ত্রী বা স্বরযন্ত্রের মতো কোনো অঙ্গ পাখির নেই। ওরা আসলে গলা দিয়ে হুইসেলের শব্দ করে এবং সেই শব্দতরঙ্গ এমনভাবে ওঠায়-নামায়, যা মানুষের কথার মতো শোনায়।

এ রকম শব্দ সৃষ্টির জন্য ওরা শ্বাসনালি এবং এর শেষাংশে যুক্ত সিরিঙ্কস ব্যবহার করে। এই সিরিঙ্কস শ্বাসনালির সঙ্গে সম্পর্কিত একটি প্রত্যঙ্গ। ময়না শ্বাস-প্রশ্বাসে ব্যবহৃত শ্বাসনালি দিয়ে বাতাস বের করার সময় নালির পেশিগুলোকে প্রয়োজন অনুযায়ী সংকুচিত ও প্রসারিত করে মানুষের কথার মতো শব্দ সৃষ্টি করে। এ জন্য কথা বলার সময় ময়না মাথা বাঁকা করে। সম্প্রতি গবেষণায় দেখা গেছে, ময়না-টিয়া-কাকাতুয়াজাতীয় পাখি কথা বলার সময় বাতাস ও শব্দ নিয়ন্ত্রণের জন্য জিহ্বাও ব্যবহার করে। ময়না অনেক সময় কয়েকটি শব্দ যুক্ত করে সরল বাক্যও গঠন করতে পারে। পরিস্থিতির সঙ্গে মিলিয়েও ওরা শব্দ উচ্চারণ করে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সাপ্তাহিক দারিয়াপুর

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন