শুক্রবার, ২০ মে ২০২২, ০৭:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
গাইবান্ধায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড গাইবান্ধায় কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক  সমিতির মানববন্ধন রক্তে ভেজা তিনফসলি জমিতে ইপিজেড নির্মাণের পরিকল্পনা বাতিলের দাবি গাইবান্ধায় সাঁওতাল বাঙালি যুব সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত  সালামের খুনিদের গ্রেফতারের দাবিতে গাইবান্ধায় জাতীয় যুব জোটের মানববন্ধন ভোজ্য তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ মিছিল গাইবান্ধায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন গাইবান্ধায় এসএসসি ব্যাচ  ৯৩ এর পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কাবিলের বাজারে সিএনজির ধাক্কায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহত দারিয়াপুরে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় এক যুবক নিহত

গোবিন্দগঞ্জে কৃষকদের বসতবাড়ি ও ফসলি জমি দখল করে বাঁধ নির্মাণের অভিযোগ

সাপ্তাহিক দারিয়াপুর ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১১ আগস্ট, ২০২১
  • ১০৪

Hits: 4

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার হরিরামপুর ইউনিয়নের তালুক সোনাইডাঙ্গা গ্রামের কৃষকদের স্থানীয় এমপির প্রভাব খাটিয়ে চাঁদাবাজির মামলার ভয় দেখিয়ে সন্ত্রাসী কায়দায় বসতভিটা ও ৫০ বিঘারও বেশি ফসলি জমি দখল করে বাঁধ নির্মাণ করা হচ্ছে। ওই গ্রামের কৃষকদের পক্ষে  মো. ময়েন উদ্দিন আকন্দ বুধবার গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন। তিনি এর প্রতিবাদ জানিয়ে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলীসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ঊর্ধ্বতন মহলের প্রতি জরুরি ভিত্তিতে প্রতিকারের দাবি জানান।

সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়, এলজিইডি ও জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সি (জাইকা) এর অর্থায়নে বড়দহ পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির মাধ্যমে কাটাখালি নদীর তীরে ম্যাপ অনুযায়ী সরকারি খাস জায়গা বা রাস্তার উপর বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ নির্মাণের পরিকল্পনা করা হয়। কিন্তু কৃষক ময়েন উদ্দিন আকন্দ ও অন্যান্য কৃষকদের সমিতির সদস্য না করে, মনগড়া সিদ্ধান্ত নিয়ে চলতি ২০২১ সালের শুরু থেকে বাঁধ নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়। ভূমির নকশা পরিবর্তন করে সরকারি খাস জমি ব্যবহারের পবিবর্তে তালুক সোনাইডাঙ্গা মৌজার ২৮৩ খতিয়ানের ৬০৭, ৬১২, ১১১৭, ১১২১, ১১২৫  দাগের ওই কৃষকদের বসতবাড়ি ও ফসলি জমি থেকে মাটি নিয়ে তাদের জমির উপর দিয়েই ৪০ ফুট দ্ধ১২ ফুট চওড়া মুখ বাঁধ নির্মাণ করা হচ্ছে। এতে তাদের ৭ বিঘা জমির ক্ষতি হয়। এমনকি ওই গ্রামের আতিকুর রহমান বিটলের বসতবাড়ির মাত্র এক বিঘা জমির উপর দিয়েও বাধ নির্মাণ করা হয়েছে। এতে একাধিকবার বাধা দিতে গেলে বড়দহ পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. নওশা মিয়া, সভাপতি সজিব আকন্দ, হরিরামপুর ইউপির সাবেক মেম্বার আব্দুল ওয়াহেদ মিয়া এবং বিপুল আকন্দ, সাদা মিয়া ও মো: ফিরোজুল ইসলামসহ ৩০-৪০ জন ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী দেশীয় অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী কায়দায় গত ৩ আগষ্ট মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্কেভেটর (ভেকু) মেশিন দিয়ে ভোর পর্যন্ত ধান শুকানো উঠানের মাটি তুলে তার জমির উপর দিয়ে বাঁধ নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করে। বাঁধ নির্মাণে কয়েক কোটি টাকার কৃষি জমির ক্ষতি হলেও তারা প্রাণের ভয়ে প্রতিবাদ করার সাহস পাচ্ছেন না এবং সন্ত্রাসীদের হুমকিতে কৃষক পরিবারগুলো চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ছাইদার রহমান, আতিকুর রহমান বিটল, সৌরভ আকন্দ ও মনির উদ্দিন আকন্দ।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সাপ্তাহিক দারিয়াপুর

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন