সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৬:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম কমানোর দাবিতে গাইবান্ধায় বাসদ মার্কসবাদীর পথসভা গাইবান্ধায় স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড গাইবান্ধায় কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক  সমিতির মানববন্ধন রক্তে ভেজা তিনফসলি জমিতে ইপিজেড নির্মাণের পরিকল্পনা বাতিলের দাবি গাইবান্ধায় সাঁওতাল বাঙালি যুব সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত  সালামের খুনিদের গ্রেফতারের দাবিতে গাইবান্ধায় জাতীয় যুব জোটের মানববন্ধন ভোজ্য তেলের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে গাইবান্ধায় সিপিবির বিক্ষোভ মিছিল গাইবান্ধায় পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন গাইবান্ধায় এসএসসি ব্যাচ  ৯৩ এর পুনর্মিলনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কাবিলের বাজারে সিএনজির ধাক্কায় মোটর সাইকেল আরোহী নিহত

গাইবান্ধা হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টে লিকুইড অক্সিজেন সংযোজিত

সাপ্তাহিক দারিয়াপুর ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১
  • ৯১

Hits: 1

সাপ্তাহিক দারিয়াপুর ডেস্ক :

করোনা পরিস্থিতি সংকট নিরসনে জরুরী অক্সিজেন ব্যবস্থার উন্নয়নে গাইবান্ধা জেলা সদর হাসপাতালে সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টে লিকুইড অক্সিজেন সংযোজিত করা হয়েছে। এতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের অক্সিজেন সমস্যার বিরাজমান সংকট নিরসন হবে এবং চিকিৎসা ব্যবস্থার উন্নয়ন সাধিত হবে।

গাইবান্ধায় করোনা পরিস্থিতি অবনতির পর থেকেই জেলা সদর জেনারেল হাসপাতালের সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণের কাজ দ্রুত গতিতে সম্পন্ন করা হয়। ২০০ শয্যার গাইবান্ধা জেলা সদর এই হাসপাতালের নতুন যে ভবন তৈরি হচ্ছে তার পাশেই অক্সিজেন প্লান্টটি স্থাপন করা হয়েছে। হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে, অক্সিজেন প্লান্ট সম্পন্ন হওয়ার পর হাসপাতালের প্রতিটি বেডেই অক্সিজেন সংযোগ দেয়ার কার্যক্রমও সম্পন্ন করা হয়।

উল্লেখ্য, বর্তমানে জেলা সদর হাসপাতালে করোনা রোগীর চিকিৎসার জন্য ২০টি বেড রাখা রয়েছে। এদিকে অক্সিজেন ইউনিট চালু হওয়ার পর করোনা রোগীদের ক্রমবর্ধমান চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে অক্সিজেনের যে সংকট সৃষ্টি হচ্ছিল সেন্ট্রাল অক্সিজেন প্লান্টে বৃহস্পতিবার লিকুইড অক্সিজেন সংযোজিত করার ফলে সে সংকট নিরসন হয়েছে। ফলে করোনা রোগী ছাড়াও শ্বাস কষ্ট, হাপানীসহ অক্সিজেন সংক্রান্ত জটিলতায় ভোগা রোগীরা সুষ্ঠু এবং দ্রুত চিকিৎসার সুযোগ পাচ্ছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | সাপ্তাহিক দারিয়াপুর

কারিগরি সহায়তায় : শাহরিয়ার হোসাইন